বগুড়ায় পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে শ্রমিক হত্যা

আজ শুক্রবার ভোরে কাহালুর এবিসি টাইলস মিলে এ ঘটনা ঘটে।

 

বগুড়ার কাহালুতে এবিসি টাইলস কারখানায় পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে রাসেল (১৮) নামের এক তরুণ শ্রমিককে হত্যা করা হয়েছে।

নিহত রাসেল কাহালু উপজেলার বীরকেদার গ্রামের আব্দুল হান্নানের ছেলে।

আজ শুক্রবার ভোরে কাহালুর এবিসি টাইলস মিলে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় কাহালুর কালাই নওদাপাড়ার জাহাঙ্গীরের ছেলে ও একই মিলের শ্রমিক রুবেলকে (২৩) পুলিশ আটক করেছে।

কাহালু উপজেলার বীরকেদারে অবস্থিত এবিসি টাইলস মিলে একই মেশিনে হেলপারের কাজ করতেন রুবেল ও রাসেল। বৃহস্পতিবার রাত ৮টা থেকে শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত একই সাথে দু’জনে ডিউটি করেন। ডিউটি শেষে রুবেল রাসেলের পরনের কাপড় খুলে মেশিন পরিস্কারের হাওয়া মেশিন দিয়ে পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে দেন। এতে রাসেল গুরুতর আহত হলে তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার দুপুরে তিনি মারা যান।

টাইলস মিল কর্তৃপক্ষ অভিযুক্ত রুবেলকে আটক করে থানায় খবর দেয়।

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রুবেলকে আটক করেছে।

এবিসি টাইলস মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কামরুজ্জামান জানান, সবার অজান্তেই রুবেল এ জঘন্য কাজটি করেছে। তবে, কেন এটা করেছে তা মিলের কেউ বলতে পারে না।

কাহালু থানার ওসি নুর-এ আলম সিদ্দিকী জানান, আটক রুবেল পুলিশের কাছে রাসেলের পায়ুপথে বাতাস দেয়ার কথা স্বীকার করেছে। সে জানিয়েছে ইয়ার্কির ছলে রাসেলের পায়ুপথে বাতাস দিয়েছিল। তাকে হত্যার কোনো ইচ্ছা ছিলো না।

লাশ ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা: নির্মলেন্দু চৌধুরী জানান, পায়ুপথে বাতাস ঢুকানোর কারণে রাসেলের লিভার ক্ষতিগ্রস্থ ও পেটের নাড়ীভুড়ি ছিড়ে গেছে। সকালে তাকে নিয়ে আসার পর আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। তাকে কৃতিম শ্বাস-প্রশ্বাস দিয়ে রাখা হয়েছিল। বেলা ৩টায় সে মারা যায়।

এ ঘটনায় আজ বিকেল পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি।

592 total views, 3 views today

Leave a Reply

সর্বশেষ সংবাদ