বরিশালে আওয়ামীলীগ নেতা সোহেল মোল্লার উপর সন্ত্রাসী হামলা, আহত

বরিশাল নগরীর রুপাতলী ২৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ওয়াদুদুর রহমান সোহেল মোল্লার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (৫ মার্চ) বেলা ১১ টার দিকে রুপাতলী বাস টার্মিনাল ভবনের ভিতরে সোহেল মোল্লার উপর ওই সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় সোহেল মোল্লা গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানাগেছে।
ঘটনার বিষয়ে আহত সোহেল মোল্লা জানান, সোমবার বেলা ১১ টার দিকে তিনি রুপাতলী বাস টার্মিনাল ভবনের ভিতরে দাড়িয়ে পেয়ারা খাচ্ছিলেন। হঠাৎ করে পিছন থেকে তার উপর অতর্কিত হামলা চালায় ২৫ নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর সুলতান মাহমুদের ভাইয়ের ছেলেরা। তিনি আরও জানান, ২৫ নং ওয়ার্ডের মৃত আঃ রশিদ হাওলাদারের ছোট ছেলে শামিম হাওলাদার(৩৪), মাহামুদ আল কবিরের পুত্র সোহাগ হাওলাদার(২৩), মোঃ নান্টু শেখ এর পুত্র মোঃ পিয়াল শেখ(২২), মোঃ বাচ্চুর ছেলে মোঃ রিজন(২৪)সহ আরও ৭/৮ জন সন্ত্রাসীরা মিলে তার উপর হামলা চালায়।
হামলার ঘটনার বিষয়ে সোহেল মোল্লার মা বিউটি বেগম জানান, সোমবার তার ছেলে ঘর থেকে বের হয়ে রুপাতলী বাস টার্মিনালে গেলে তার উপর সন্ত্রাসী হামলা চালায় স্থানীয় শামিম, সোহাগ, পিয়াল, রিজনসহ ৭/৮ জন মিলে। তিনি আরও জানান, সোহেল মোল্লার উপর হঠাৎ করে পিছন থেকে যেভাবে হামলা করা হয়, স্থানীয়রা যদি তার ছেলেকে বাঁচাতে এগিয়ে না আসতো তাহলে তার ছেলেকে মেরেই ফেলতো সন্ত্রাসীরা। তিনি বলেন, তার ছেলের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
ঘটনার বিষয়ে কোতয়ালী মডেল থানার এসআই দিপায়ন জানান, সোহেল মোল্লার উপর সন্ত্রাসী হামলার সংবাদ পেয়ে ঘটনা স্থলে গিয়ে ঘটনার বিষয়ে বিস্তারিত জেনে এসেছি। থানায় অভিযোগ দিলে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
স্থানীয়রা জানায়, ২৫ নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর সুলতান মাহামুদের ভাইয়ের ছেলেরা এলাকায় বিভিন্ন সময় সন্ত্রাসী মূলক কার্যক্রম করে থাকেন। আর তাদের সন্ত্রাসী মূলক কর্মকান্ডের সহযোগীতা করেন সাবেক কাউন্সিলর সুলতান মাহমুদ। স্থানীয়রা আরও জানায়, রাজনৈতিক যে দলই ক্ষমতায় আসে সুলতান মাহামুদ সেই দলেরই লোক হয়ে যায়। এ নিয়ে বেশ কয়েকদিন আগে স্থানীয় একটি পত্রিকায় সংবাদও প্রকাশ হয়, ”দল যায় দল আসে সুলতান থাকে বহাল তবিয়াতে” এই শিরোনামে। স্থানীয়রা আরও বলেন, সোহেল মোল্লা ২৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হওয়া ও বরিশাল-পটুয়াখালী বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির কাউন্টার ইনচার্জের দায়ীত্ব পাওয়ার পর থেকে রুপাতলি এলাকায় তার জনপ্রিয়তা অনেকটা বেড়ে যায়। যার কারনে স্থানীয় সন্ত্রাসী তার জনপ্রিয়তাকে বেস্তে দিতে তার উপর সন্ত্রসী হামলা চালায়।

356 total views, 4 views today

সর্বশেষ সংবাদ