যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে কুপিয়েছে পাষন্ড স্বামী

বরিশালের উজিরপুরে যৌতুকের টাকা না পেয়ে পাষন্ড স্বামী ও শশুর-শাশুরী মিলে অসহায় ২ সন্তানের জননীকে বিরোধ মিমাংশার নামে ফোন করে বাড়ীতে নিয়ে কুপিয়ে যখম করেছে এবং উল্টো গতকাল সোমবার সকালে আহতকে মোবাইল ফোনে প্রানে মেরে ফেলার হুমকী দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আতঙ্কে আহত’র পরিবার। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপার সৃষ্টি হয়েছে। জানা যায় উপজেলার উঃশোলক গ্রামের দিনমজুর সাজাহান মোল¬ার মেয়ে হোসনেয়ারা বেগম(২৫) এর সীমান্তবর্তী গৌরনদি উপজেলার শাওরা গ্রামের সাহেব আলী সরদারের ছেলে শাহাদাৎ সরদারের সাথে ১০ বছর পূর্বে ইসলামী শরিয়ানুযায়ী সামাজিক ভাবে তাদের বিবাহ সম্পাদন হয়। তাদের দাম্পত্য জীবনে মেয়ে সুমাইয়া আক্তার(৯), ছেলে সিয়াম(৬) দুটি সন্তান রয়েছে। বিবাহের পর থেকে প্রায়ই যৌতুকের দাবীতে স্বামী,শশুর,শাশুরী হোসনেয়ারাকে মারধর করে আসছিল। এ ঘটনায় এলাকায় একাধিকবার শালিশি বৈঠক হলেও কলহের মিমাংশা হয়নি। পরে স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম অসহায় হয়ে পরে পিত্রালয়ে আশ্রয় নেয়। এরই ধারাবাহিকতায় গত বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টায় স্বামী শাহাদাৎ সরদার,শশুর সাহেব আলি,শাশুরী রানী বেগম মিলে ফন্দি করে তাদের কলহের মিমাংশার কথা বলে হোসনেয়ারাকে ফোন করে শশুরালয় নিয়ে আরো ২ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করে। এতে রাজী না হলে হোসনেয়ারাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে রক্তাক্ত যখম করে। এসময় তার ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা ঘটনাস্থল ছুটে এসে আহতকে উদ্ধার করে উজিরপুর স্বাস্থ্য কমপে¬ক্্ের ভর্তি করে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা হয়নী তবে মামলার প্রস্তুতি চলছে। আহত হোসনেয়ারা বেগম কান্নায় ভেঙ্গে পরে সাংবাদিকদের জানান ইতিপুর্বে আমার পাষন্ড স্বামীকে আমার বাবা আমার সুখের জণ্য নগদ ৩ লক্ষ টাকা যৌতুক দেয়। পরে আরো ২ লক্ষ টাকা আমার বাবার কাছ থেকে এনে দিতে বলে এতে আমি রাজী না হলে আমাকে স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন মিলে কুপিয়ে ও পিটিয়ে যখম করে। অভিযুক্ত স্বামী শাহাদাৎ এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করতে চাইলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। আহত স্ত্রী, যৌতুকলোভী পাষন্ড স্বামীর বিরুদ্ধে বিচারের দাবী জানিয়ে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

105 total views, 3 views today

সর্বশেষ সংবাদ